মানিকগঞ্জে ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার জামসা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান মিঠুকে (৫০) ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে ওই চেয়ারম্যানকে জেলা ও দায়রা জজ আদালতে পাঠায় পুলিশ।

এর আগে সোমবার রাতে সিংগাইর থানা পুলিশ তার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। মিঠু জামসা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং বর্তমান চেয়ারম্যান।

সিংগাইর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সফিকুল ইসলাম বলেন, গত ৫ সেপ্টেম্বর দক্ষিণ জামসা গ্রামের কোহিনুর ইসলামের মেয়ে বৃষ্টি আক্তার ওরফে রূপালী আক্তার (২১) মানিকগঞ্জ আদালতে শিশু ও নারী নির্যাতন দমন অপরাধ ট্রাইব্যুনালে মিঠুর বিরুদ্ধে মামলা করেন। ওই মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা অনুযায়ী গ্রেপ্তার হয় ইউপি চেয়ারম্যান।

সংশ্লিষ্ট সূত্র ও মামলার বিবরণে জানা গেছে, চেয়ারম্যান মিঠু মিথ্যা প্রলোভনে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ১০০ টাকার জুডিসিয়াল স্ট্যাম্পের মাধ্যমে কথিত বিয়ের ঘোষণা দিয়ে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে অন্যত্র বাসা নিয়ে বসবাস করেন। একপযার্য়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে যায় ওই নারী।

চেয়ারম্যান কৌশলে ওই সন্তান নষ্ট করেন। এই ঘটনার পর চেয়ারম্যানের কাছে বিয়ের কাবিননামা দেখতে চান ওই নারী। এই বিষয়টি নিয়ে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য সৃষ্টি হয় এবং ওই নারীকে মারধর করেন চেয়ারম্যান। এরপর ওই নারী ন্যায় বিচারের প্রত্যাশায় আদালতে মামলা করেন।

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো