‘হাইয়া আলাস সালাহ’ বলতে বলতে মুয়াজ্জিনের মৃত্যু

ফজরের নামাজে আজান দেওয়ার সময় এক মুয়াজ্জিনের মৃত্যু হয়েছে। হাসানি নামের ওই মুয়াজ্জিন মিসরের আল মানুফিয়া জেলার আল বাজাউর এলাকায় একটি মসজিদে আজান দিতেন। সেই মসজিদেই শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) ফজরের আজানের সময় ঘটনাটি ঘটে।

সৌদি আরবের গণমাধ্যম আল আরাবিয়া জানায়, আজানের ‘হাইয়া আলাস সালাহ’ অর্থাৎ নামাজের জন্য এসো বলতে বলতেই মুয়াজ্জিন আলহাজ হাসানি মারা যান।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে আল আরাবিয়া জানান, হাসানি অত্যন্ত ভালো একজন মানুষ ছিলেন। কয়েক বছর ধরে তিনি ওই মসজিদে বিনা পারিশ্রমিকে আজান দিতেন। তিনি শুধু নামাজিই ছিলে না। বেনামাজিদেরকেও নামাজ পড়তে যত্নের সাথে দাওয়াত দিতেন।

হাসানির ছেলে মাহমুদ হাসানি জানান, প্রতিদিনের মত শুক্রবারও ভোরে অজু করে আমার বাবা মসজিদে যান। তিনি আজান শুরু করেছেন, আমরা তাও শুনি। কিন্তু হঠাৎ ‘হাইয়া আলাস সালাহ’ বলার পরে আর কোন আওয়াজ শোনা যায়নি। আমরা দৌঁড়ে মসজিদে গেলাম একথা জানতে যে, কেন আজান পরিপূর্ণভাবে দেওয়া হলো না। কিন্তু যখন আমরা মসজিদে প্রবেশ করি, তখন দেখি আমার পিতা মসজিদের মেঝোতে কিবলামুখী হয়ে পড়ে আছেন। বুঝতে পারি-তিনি আর পৃথিবীতে নেই।

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো