আ’লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যার দায় স্বীকার

নোয়খালীর বেগমগঞ্জে আবু ছায়েদ ভুঁইয়া রিপন (৪৮) নামের এক আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় এ আসামি ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

নোয়াখালীর পুলিশ সুপার, মো. শহীদুল ইসলাম জানান, জেলার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এমদাদুল হকের আদালতে শনিবার (৩০ অক্টোবর) ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন আসামি রাশেদুজ্জামান অন্তর (২২)। তিনি বেগমগঞ্জের তালুয়া চাঁদপুর গ্রামের মৃত নূর হোসেন আজগরের ছেলে। জবানবন্দিতে আওয়ামী লীগ নেতা রিপন হত্যার দায় স্বীকার করেন তিনি।

এর আগে বুধবার দিনগত রাতে উপজেলার মীর ওয়ারিশপুর ইউনিয়নের বারিয়াহাট গাছতলা এলাকায় আবু ছায়েদ ভুঁইয়া রিপনকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। তখন তার সাথে থাকা নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন লুট করে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। বৃহস্পতিবার সকালে নিহতের বাড়ির কাছ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তাৎক্ষণিক কেউ হত্যার কারণ জানাতে পারেনি।

শুক্রবার বিকালে নিহতের স্ত্রী পারভীন আক্তার বাদী হয়ে ৫ জনের নাম উল্লেখ্য করে ও অজ্ঞাত ৭-৮ জনকে আসামি করে বেগমগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

নিহত রিপন মিরওয়ারিশপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্বরত ছিলেন। তিনি ইউনিয়নের কালুয়া চাঁদপুর গ্রামের ভুইয়া বাড়ির মৃত রফিক ভূঁইয়ার ছেলে।

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো