জিকজাক ইটভাটায় হাজারো হতদরিদ্রের কর্মসংস্থান

বরগুনায় সরকারি নিয়ম নীতির মধ্য থেকেই রাজ্জাক, শায়লা ,আরিফা মু্সারাত এন্টার প্রাইজ নামের তিনটি প্রতিষ্ঠান দুই নারী উদ্যোক্তার তৎপরতায় ডেইরি ফার্ম, মৎস্যগের, ইটভাটা প্রতিষ্ঠিত হওয়ায়। কর্মসংস্থান ফিরে পেয়েছে হাজারো হতদরিদ্র পরিবার।

এমনই চিত্র লক্ষ্য করা গেছে, বরগুনা জেলার, পাথরঘাটা উপজেলার, কাকচিড়া ইউনিয়নের, বাইঞ্চটকি ফেরিঘাট এলাকায়। ওখানে আরএসবি ব্রিকস নামে তিনটি ইটভাটা রয়েছে। ব্রিকস গুলো জিকজাক হাওয়া, উন্নত মানের ইট উৎপাদন হয়। ইট গুলি সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে এবং এই প্রতিষ্ঠানে হাজার হাজার শ্রমিক কাজ করছে।

কাজে নিয়োজিত শ্রমিকরা জানান, একদিকে মহামারী করোনাভাইরাস অন্যদিকে মৎস্য অবরোধ, তারা জেলে পরিবার হওয়ায় এই মহামারিতে নদীতে না যেতে পেরে, এলাকার ইটভাটায় কর্মসংস্থান বেঁচে নিয়ে ছেলে মেয়েদের লেখাপড়া সহ পরিবার পরিজন নিয়ে ডাল ভাত খেয়ে বেঁচে আছেন তারা।

আরএসবি ব্রিকস এ কর্মরত দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যানেজার মোঃ মনির হোসেন বলেন, ১৯৯৪ সালে প্রথম ইটভাটা শুরু হয়। পরবর্তীতে ডেইরি ফার্ম মৎস্য খামার করা হয়। এখানে হাজারো কর্মচারী কর্মসংস্থান করে দেওয়া হয়েছে। ইট বাকি না দেয়ায়, একটি কুচক্রী মহল এই প্রতিষ্ঠানে ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য সমালোচনা করে যাচ্ছে। এরকমের প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তাদের প্রতি সরকারের দৃষ্টি রাখার দাবি জানান, এলাকার সুশীল সমাজের ব্যক্তিরা।

মোঃ মেহেদী হাসান/বার্তা বাজার/অমি

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো