কুমারখালীতে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ, আটক ১

কুষ্টিয়া কুমারখালীতে তৃতীয় শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার (৩১ অক্টোবর) সকালে উপজেলার নন্দনালপুর ইউনিয়ন সোন্দাহ গ্ৰামে এঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম মাধব প্রামাণিক (৬০)। তিনি ইউনিয়নের সোন্দাহ গ্রামের ভূইয়া পাড়ার মৃত মকন্দ লাল প্রামাণিকের ছেলে। তিনি পেশায় একজন নরসুন্দর ও তিন সন্তানের জনক।

ভিকটিমের পরিবার ও এলাকাবাসী জানায়, রোববার সকাল ১০ টার দিকে ভিকটিমের মা বাবা বড় মেয়েকে নিয়ে স্কুলে যায়। সেই সুযোগে মাধব প্রামাণিক পানির তৃষ্ণা মিটাতে ভিকটিমের বাড়িতে যায়। বাড়ি ফাঁকা পেয়ে অভিযুক্ত ব্যক্তি স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পরে ভিকটিমের পরিবার বাড়িতে এসে ভিকটিমকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

ভিকটিমের মা বলেন, মাধব সকাল থেকে বাড়িতে কয়েকবার উকিঝুকি মারছিল। আমরা বড় মেয়েকে নিয়ে স্কুলে গিয়েছিলাম। সেই সুযোগে মাধব মেয়ের সাথে খারাপ কিছু করে পালিয়ে যায়। পরে বাড়ি ফিরে মেয়েকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কুমারখালী থানার ওসি কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, ভিকটিমকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত ব্যক্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই বিষয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

মোশারফ হোসেন কুমারখালী/বার্তা বাজার/অমি

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো