জেলহত্যা দিবসে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর পক্ষে কামারুজ্জামানের সমাধিতে শ্রদ্ধা

আজ ৩রা নভেম্বর। মানব সভ্যতার ইতিহাসে কলঙ্কময়, রক্তঝরা ও বেদনাবিধুর একটি দিন। ১৯৭৫ সালের ৩রা নভেম্বর মধ্যরাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের নির্জন প্রকোষ্ঠে জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করা হয়।

দিবসটি উপলক্ষে কেন্দ্রীয় আ.লীগের পাশাপাশি রাজশাহীতেও যথাযোগ্য মর্যদায় পালিত হচ্ছে ঐতিহাসিক জেল হত্যা দিবস। বুধবার (৩রা নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে নগর ও জেলা আ.লীগের পাশাপাশি রাজশাহী-৬ আসনের সাংসদ ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব মোঃ শাহরিয়ার আলম এমপি’র পক্ষ থেকে এবং চারঘাট উপজেলা ও পৌর আ.লীগের হয়ে শহিদ কামারুজ্জামানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং মাজার জিয়ারত করেন চারঘাট উপজেলা ও পৌর আ.লীগের নেতাকর্মীরা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, চারঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ ফকরুল ইসলাম, উপজেলা আ.লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ আনোয়ার হোসেন, পৌর মেয়র ও পৌর আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল হক, পৌর আ.লীগের সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ১৯৭৫ সালের এদিনে জাতীয় চার নেতা বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদ, মন্ত্রিসভার সদস্য ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী এবং এএইচএম কামরুজ্জামান হেনাকে নির্মম ও নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়।

একাত্তরের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের শত্রুরা সেদিন জাতীয় এই চার নেতাকে শুধু গুলি চালিয়েই ক্ষান্ত হয়নি, কাপুরুষের মতো গুলিবিদ্ধ দেহকে বেয়নেট দিয়ে খুঁচিয়ে ক্ষত-বিক্ষত করে একাত্তরের পরাজয়ের জ্বালা মিটিয়েছিলো।

নবী আলম/বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো