স্ত্রী ও শ্যালিকা একসাথে অন্তঃসত্ত্বা: যুবক গ্রেফতার

ময়মনসিংহের ফুলপুরে একসাথে স্ত্রী ও শ্যালিকা অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনায় আলম মিয়া নামে এক যুবক পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন। পেশায় নির্মাণ শ্রমিক আলম মিয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের নয়াগাঁও প্রকাশ নগুয়া গ্রামের মৃত আহমাদ আলীর ছেলে।

বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) রাতে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতারের পর শুক্রবার আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরণ করেন।

জানা যায়, স্ত্রীর সাথে আলমের বিয়ের পর থেকেই শ্যালিকার প্রতি আকৃষ্ট ছিলেন আলম। বিয়ের পর থেকে শ্যালিকাকে বিভিন্ন সময় কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। মাস চারেক আগে তার শ্যালিকা প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময় অপহরণ করেন আলম। পরে ফুসলিয়ে নিজের বাড়ীতে নিয়ে যান। শ্বশুরবাড়ির লোকজন জানতে পারার পর আলম কথা দেয় ফেরত পাঠাবে তার শ্যালিকাকে। কিন্তু ৪ মাসেও আর ফেরত পাঠায়নি।

আলমের শ্বশুরবাড়ির লোকজন জানতে পারেন, শ্যালিকাকেও সে বিয়ে করেছে। স্ত্রীর পাশাপাশি আলমের শ্যালিকাও এখন অন্তঃসত্ত্বা। এমতাবস্থায় পরিবারের লোকজন ফুলপুর থানায় মামলা দায়ের করলে আলমকে পুলিশ গ্রেফতার করে।

ফুলপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, ভিকটিমকে আদালতে হাজির করলে বিচারক তার বাবার হেফাজতে দেন। এখন দুই বোনই বাবার হেফাজতে আছে বলেও জানান তিনি।

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো