কক্সবাজারে গুলিবিদ্ধ শ্রমিক লীগ সভাপতি জহিরের মৃত্যু

কক্সবাজারে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গুলিবিদ্ধ দুই সহোদরের মধ্যে জেলা শ্রমিক লীগ নেতা জহির ইসলাম সিকদার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। তিনি কক্সবাজার সদর উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নের লিংরোড এলাকার মোহাম্মদ জামাল আহমেদের ছেলে।

রোববার (৭ নভেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এর আগে শুক্রবার (৫ নভেম্বর) রাতে সদর উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সদস্য প্রার্থী কুদরত উল্লাহ সিকদার মেম্বার ও তার ভাই জহির ইসলাম সিকদারকে নিজ অফিসে আলাপরত অবস্থায় গুলি করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

এ সময় গুলিবিদ্ধ দু’জনকেই কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে জহিরের অবস্থার অবনতি হলে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি দুপুরে তিনি মারা যান।

তার আহতের ঘটনায় জেলার জহির সমর্তিত দলীয় নেতা কর্মীরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন। পরে দুপুরের দিকে তার মৃত্যুর সংবাদে নেতা কর্মীরা আরো বিক্ষুদ্ধ হয়ে পড়ে।

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো