কুড়িগ্রামে নির্বাচনের আগে প্রার্থীর মৃত্যু; ভোট স্থগিত

কুড়িগ্রাম জেলা নাগেশ্বরী উপজেলায় তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত হওয়া নির্বাচনে নেওয়াশী ইউনিয়নের সাবেক বিএনপির সাধারন সম্পাদক ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ এন্তাজ আলী সরকার নামে এক প্রার্থীর মৃত্যু হয়েছে।

নেওয়াশী ইউনিয়নের গবর্ধনকুটি সরকার পাড়া গ্রামের মৃত বজলার রহমানের ছেলে এন্তাজ আলী ।

শুক্রবার ১২ ই নভেম্বর সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। প্রার্থীর মৃত্যুকে নিয়ে নেওয়াশী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন স্থগিত করেছে উপজেলা নির্বাচন অফিস।

পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার ১১ ই নভেম্বর সন্ধ্যায় মোঃ এন্তাজ আলী সরকার হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার সকালে তিনি মৃত্যু বরণ করেন। তৃতীয় দফায় আগামী ২৮ নভেম্বর উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নের সাথে নেওয়াশী ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। এতে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দেন নেওয়াশী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এন্তাজ আলী। শুক্রবার উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে তার প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার কথা ছিল।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসার আনোয়ার হোসেন বলেন, কোন প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধতা পাওয়ার পরে যদি তিনি মৃত্যু বরণ করেন তাহলে ওই পদের ভোটগ্রহণ স্থগিত হয়ে যায়। নেওয়াশী ইউনিয়নের ক্ষেত্রেও এমনটাই ঘটেছে। স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) নির্বাচন-২০১০ এর বিধি ২০ এর ১ মোতাবেক গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ওই পদে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হবে। পরবর্তীতে পুনঃ তফসিল দিয়ে ভোটগ্রহণ করা হবে।

সুজন মোহন্ত/বার্তাবাজার/কামাল

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো