মোংলায় বাল্কহেড ডুবি: নিঁখোজ আরও এক মরদেহ উদ্ধার

মোংলা বন্দরের পশুর নদীর হাড়বাড়িয়া এলাকায় কয়লা বোঝাই বাল্কহেড ডুবির ঘটনায় নিঁখোজ থাকা তিনজনের মধ্যে আরো একজনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে।

শুক্রবার (১৯ নভেম্বর,) দুপুরে বন্দর চ্যানেলের ১২ নম্বর এ্যাংকরেজ এলাকা থেকে ভাসমান অবস্থায় এ মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়েছে।

নৌযান শ্রমিক সংঘঠনের নেতা আবুল হাসান বাবুল এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, গত সোমবার রাতে হাড়বাড়িয়ার কয়লা বোঝাই বাল্কহেড এমবি ফারদিন-১ ডুবির সময় ৫ নাবিক নিঁখোজ থাকেন। এরমধ্যে মঙ্গলবার বিকেলে ও সন্ধ্যায় দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই তিনজন নিঁখোজ থাকা অবস্থাতেই সংশ্লিষ্টরা বুধবার উদ্ধার অভিযান বন্ধ করে দেন।

তারপর থেকে নিঁখোজদের পরিবার মরদেহের সন্ধানে দুর্ঘটনা কবলিত এলাকায় খোঁজতে থাকেন। তারা এক পযার্য়ে শুক্রবার দুপুরে হাড়বাড়িয়া-৯ বয়া এলাকায় একটি মরদেহ ভাসতে দেখেন তারা।

এরপর তারা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করেন। শুক্রবার উদ্ধার হওয়া মরদেহটি ওই বাল্কহেডের নাবিক রবিউল ইসলামের (৩৫)। তার বাড়ি পিরোজপুরের স্বরূপকাঠী এলাকায় বলে জানা গেছে।

এর আগে মঙ্গলবার উদ্ধার হওয়া মরদেহ দু’টি হলো গ্রিজার নুর ইসলাম (৩২) ও সুকানি মহিউদ্দিনের (৩৫)। এই দুইজনের বাড়িও স্বরূপকাঠীতে। তবে এখনও আরো দুইজন নাবিক নিঁখোজ রয়েছে। তারা হলেন, পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ার জিহাদ ও বাগেরহাটের মোংলার সামছু।

কামরুজ্জামান জসিম/বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো