বাবা মেম্বার, ছেলে চেয়ারম্যান!

রাজশাহীর বাঘায় আসন্ন চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে চকরাজাপুর ইউপিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীতা করছেন রুবেল রানা। কিন্তু তার প্রার্থী হওয়ার আলোচনাকে টপকে এখন আলাপ জমেছে তার বাবা আব্দুর রহমান দর্জি একই ইউপিতে মেম্বার পদে প্রার্থীতা করার বিষয়টি।

শনিবার উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন চকরাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রহমান দর্জি ও তার ছেলে রুবেল রানা।

জানা যায়, পদ্মা নদীর ১৫টি চর নিয়ে গঠিত চকরাজাপুর ইউনিয়ন। ইউনিয়নের চৌমাদিয়াচর এলাকা নিয়ে গঠিত ২ নং ওয়ার্ড। মাত্র ৫৫৬ জন ভোটারের মধ্যে এই ওয়ার্ডে পুরুষ ২৫১ ও নারী ৩০৫ জন। ২০১৬ সালের নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় এই ওয়ার্ডের মেম্বার নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। ২০০৩ সালেও ছিলেন মেম্বার। ২০২১ সালের ২৩ ডিসেম্বর নির্বাচনে আবারও তিনি বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেম্বর হতে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

আবদুর রহমান দর্জি বলেন, আমি সবসময় মানুষের সেবা দেওয়ার চেষ্টা করি। আমার ওয়ার্ডে কারও কোনো সমস্যা হলে সঙ্গে সঙ্গে তার বাড়িতে গিয়ে সমাধান করার চেষ্টা করি। ফলে গত নির্বাচনে আমাকে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেম্বার নির্বাচিত করেন। এবারেও আশা করছি বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় মেম্বার হতে যাচ্ছি।

রুবেল রানা বলেন, আমি চেয়ারম্যান পদে ইতোমধ্যে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছি। আশা করছি আগামী ২৩ ডিসেম্বর চেয়ারম্যান হিসেবে বিজয়ী হব।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার মুজিবুল আলম জানান, রুবেল রানা চেয়ারম্যান পদে এবং আবদুর রহমান দর্জি মেম্বার পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

চকরাজাপুর ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ৯ হাজার ৭১৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৪ হাজার ৯৫৬ ও নারী ৪ হাজার ৭৫৪ জন।

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো