বাঘের মুখ থেকে ছেলেকে কেড়ে আনলেন মা

শীতের রাতে বাড়ির উঠানে রান্না করার সময় ৮ মাসের ছেলেকে মুখে নিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যাচ্ছিল একটি চিতাবাঘ। দৃশ্যটি দেখে থেমে থাকতে পারেননি ছেলেটির মা। বাঘের পেছনে ১ কিলোমিটার রাস্তা ধাওয়া করে ধরেই ফেললেন বাঘটিকে। পরে চলল মা আর বাঘের যুদ্ধ। এক পর্যায়ে জয়ী হয় মায়ের ভালোবাসা।

ভারতের মধ্য প্রদেশে ঘটা এই ঘটনা এখন নেট দুনিয়ায় ভাইরাল। প্রদেশের বড়ি ঝিড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ওই সাহসী মায়ের নাম কিরন।

জানা যায়, শীতের রাতে নিজে রান্না করার পাশাপাশি ৩ ছেলে বসে আগউন পোহাচ্ছিল। তখন পাশেই ছিল একটি বাঘ। যা তারা বুঝতেও পারেনি।

আগুনের আঁচে তখন নিজেদের গরম করে নিতে ব্যস্ত কিরণ। গুটি গুটি পায়ে একেবারে কাছে এসে হঠাৎ লাফ কিরণের এক সন্তানের উপর। কিছু বুঝে ওঠার আগেই আট বছরের ছেলেকে মুখে করে নিয়ে দৌড় দিয়েছিল চিতাবাঘটি।

চোখের সামনে এমন ভয়ানক দৃশ্য দেখে নিজেকে স্থির রাখতে পারেননি মা কিরণ। বাঘের পিছু পিছু জঙ্গলের দিকে এক কিলোমিটার দৌড়ন তিনি। ধাওয়া করতে দেখে বাঘও কিছুটা ঘাবড়ে গিয়েছিল। নিজেকে বাঁচাতে শিকারকে মুখে নিয়েই ঝোপের মধ্যে লুকিয়ে পড়েছিল।

কিন্তু কিরণ ছাড়ার পাত্রী নন। এ বার তিনি খুব ধীর মস্তিষ্কে ছেলেকে বাঘের হাত থেকে বাঁচানোর চেষ্টা শুরু করেন। বাঘটিকে নানা ভাবে ভয় দেখানোর চেষ্টা করেন।

কিন্তু বাঘও নাছোড়বান্দা। বাঘের একেবারে কাছে ছেলেকে ছিনিয়ে আনার চেষ্টা করতেই কিরণের উপর হামলা চালায় বাঘটি। কিন্তু পাল্টা লাঠি দিয়ে আঘাত করতেই কিরণ এবং তাঁর ছেলেকে ছেড়ে দিয়ে অন্ধকারে মিলিয়ে যায় চিতাবাঘটি। আহত অবস্থায় ছেলেকে উদ্ধার করেন কিরণ। এক মায়ের এই দুঃসাহসিক ঘটনা এখন লোকের মুখে মুখে।

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো