‘এদেশের সন্তানরা পাকিস্তান জিন্দাবাদ বললে হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়’ (ভিডিওসহ)

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি, সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা শাজাহান খান এমপি বলেছেন, এই বাংলাদেশের ৩০ লক্ষ মানুষ জীবন দিলো ২ লক্ষ মা বোন সম্ভ্রম দিলো। সেই বাংলাদেশে দাঁড়িয়ে আমাদের সন্তানরা তারা মুখে পাকিস্তান জিন্দাবাদ বলবে আর পাকিস্তানের পতাকা উড়াবে, মুখে পতাকা আঁকবে তারপরেও কি আমরা বলতে পারি যে আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাস্তবায়ন করতে পেরেছি। আমাদের লজ্জা করে না, রক্তক্ষরণ হয় হৃদয়ে। আমাদের দায়িত্ব রয়েছে এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে হবে।

শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) বিকালে মাদারীপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশ ও অবহিতকরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে একথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি আরও বলেন, মুক্তিযুদ্ধ কি? বঙ্গবন্ধু কি? মুক্তিযোদ্ধাদের জীবনের ইতিহাস কি? কীভাবে যুদ্ধ করেছে? সেগুলো বাচ্চাদের শিক্ষা দিবেন। পাকিস্তানের প্রতি ঘৃনা সৃষ্টি করতে হবে।

শাজাহান খান বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের এখনও বাংলাদেশে লাঞ্চিত করা হচ্ছে। কক্সবাজারের মহেষখালিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা আমজাদ হোসেন রাজাকারের বিরুদ্ধে স্বাক্ষী দেওয়ায় তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে যখম করা হয়েছে। যে করেছে সে সেই রাজাকারের ছেলে এবং মেয়র তাও আবার আওয়ামী লীগের।

শাজাহান খান আরও বলেন, আমাদের চট্টগ্রামের এক মুক্তিযোদ্ধা মারা গিয়েছেন একজন আ.লীগের নেতা তাকে রাষ্ট্রীয় সন্মান দিতে দেয় নি। সেই প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা যখন রাস্তায় নেমেছে তাদের ওপর হামলা করেছে ওই আ.লীগ নেতা। যারা এইগুলো করে তারা আ.লীগ হতে পারে না, তারা বঙ্গবন্ধুর সৈনিক হতে পারে না। আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে, আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে সমুন্নত রাখতে চাই, বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে সমুন্নত রাখতে চাই।

জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুনের সভাপতিত্বে বীর মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশ ও অবহিতকরণ সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, মাদারীপুর পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেল, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ওবাইদুর রহমান খান সহ মুক্তিযুদ্ধকালীন মাদারীপুর জেলার মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

আকাশ আহম্মেদ সোহেল/বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো