পুলিশ দেখে পালিয়ে গেলো বাবা-মা, গাঁজাসহ হিজড়া গ্রেফতার

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে ৫০০ গ্রাম গাঁজাসহ তৃতীয় লিঙ্গের এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে গেছে তার মাদক কারবারী বাবা-মা। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা করেছে।

রবিবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে উপজেলার ২নং পালশা ইউনিয়নের বরহাট্টা-উচিৎপুর গ্রামের এক মাদক ব্যবসায়ীর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতার হওয়া তৃতীয় লিঙ্গের ওই মাদক ব্যবসায়ী হলো, সুমন সরকার (২৩)। তিনি বরহাট্টা-উচিৎপুর গ্রামের মতিন সরকারের সন্তান।

মামলার বাদী পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) হাবিবুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার দুপুরে মাদক ব্যবসায়ী মতিন সরকারের বাড়িতে অবস্থান নেন তারা। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌঁড়ে পালিয়ে যান মাদক ব্যবসায়ী মতিন ও তার স্ত্রী আরেফা বেগম। পরে তাদের তৃতীয় লিঙ্গের সন্তান সুমন সরকারকে আটক করে, তার কাছে থাকা বাজারের ব্যাগ তল্লাশী করলে সেখান থেকে ৫০০ গ্রাম গাঁজা জব্দ করা হয়।

ঘোড়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু হাসান কবির, পিপিএম (সেবা) বলেন, গ্রেফতার ওই মাদক ব্যবসায়ী এবং তার পলাতক বাবা-মা একে অপরের যোগসাজসে দীর্ঘদিন থেকেই মাদকের ব্যবসা করে আসছে। গ্রেফতার আসামীর বাবা মতিন সরকারের বিরুদ্ধে ঘোড়াঘাট ও হাকিমপুর থানায় একাধিক মাদকের মামলা রয়েছে। আসামীকে সোমবার দুপুরে দিনাজপুরের বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

মোঃ লোটাস আহম্মেদ/বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো