নবীনগরে মরা গাছের ডাল পড়ে বৃদ্ধার মৃত্যু

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর কোম্পানিগঞ্জ সড়কের গড়ের পাড় মহা শ্মশানের পাশে সড়ক ও জনপদ বিভাগের একটি মরা গাছের ডাল ভেঙ্গে মাথায় পড়ে রহিমা বেগম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

তিনি নবীনগর পৌর এলাকার ভোলাচং গ্রামের মৃত কাদির মিয়ার স্ত্রী। । সোমবার বেলা ১১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে নবীনগর পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট শিব শংকর দাস ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এই ঘটনায় আরো ২ জন গুরুতর আহত হয়। তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃষ্টির মধ্যে রহিমা বেগম গড়েরপাড় থেকে নবীনগর আসার উদ্দেশ্য গাছটির নিচে অটোরিক্সার জন্য অপেক্ষা করছিলেন। হঠাৎ করে সড়ক ও জনপদ বিভাগের পরিত্যক্ত মরা গাছটির ডাল ভেঙে রহিমার মাথায় পড়লে গুরুতর আহত হয়। আশংকাজনক অবস্থায় তাকে নবীনগর সদর হাসাপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রহিমাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নবীনগর পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট শিব শংকর দাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সড়ক ও জনপদ বিভাগের অবহেলায় অনেকদিন যাবত নবীনগর কোম্পানিগঞ্জ সড়কে অসংখ্য ঝুঁকিপূর্ণ মৃত গাছ রয়েছে। তারা এ গাছগুলি যদি যথা সময়ে কেটে ফেলতেন তাহলে আজকের এই দুর্ঘটনা ঘটতো না।

এর আগেও এই গাছ ভেঙ্গে দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন বহু মানুষ। আমি এ বিষয়ে মাননীয় এমপি মহোদয়ের সাথে কথা বলে দ্রুত এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিবো। আমার পৌর এলাকায় কোন পরিত্যক্ত গাছ থাকতে দিবো না।

এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার একরামুল ছিদ্দিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নিহত বৃদ্ধার বাড়ি গিয়ে পরিবারকে সান্তনা দেন এবং নগদ ২০ হাজার টাকা প্রদান করেন। এসময় পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট শিব শংকর দাস উপস্থিত ছিলেন।

মোঃ. আক্তারুজ্জামান/বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো