মুরাদকে পদত্যাগের নির্দেশ দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে বিএনপির ধন্যবাদ

নারী বিদ্বেষী ও অবমাননাকর বক্তব্য দেওয়ার পর তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এমন নির্দেশ দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিএনপির নেতৃবৃন্দ।

ডা. মুরাদের পদত্যাগের পর বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস গণমাধ্যমকে জানান, সরকার সঠিক কাজটিই করেছে। আমি বলব বহুদিন পর সরকার একটি সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আমি ওনাকে আমার ব্যক্তিগত জায়গা থেকে ধন্যবাদ জানাই।

তিনি বলেন, এটা শুধু আমাদের কথা না, এটা নিয়ে নারী নেত্রীরা সমালোচনা করছেন। যে শব্দ তিনি (মুরাদ) ব্যবহার করেছেন, যে অশ্রাব্য কথা তিনি বলেছেন, সেটা কিছুতেই গ্রহণযোগ্য না। মুরাদকে পদত্যাগের জন্য নির্দেশ না দিয়ে তাকে বরখাস্ত করতে পারতেন প্রধানমন্ত্রী। তাহলে আরও খুশি হতাম।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য সেলিমা রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বিবেচনাবোধে ধরেছে, তা থেকে তিনি এটা করেছেন, এ জন্য আমরা খুশি। তাই কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। যে অশ্রাব্য ভাষা এই প্রতিমন্ত্রী ব্যবহার করেছেন, সেটি কিছুতেই গ্রহণযোগ্য নয়। রাজনীতি আমিও করি, আমিও একজন নারী, প্রধানমন্ত্রীও একজন নারী। সমালোচনা করার একটা ভাষা আছে। কিন্তু তিনি যে ভাষা ব্যবহার করেছেন, সেটি পুরো দেশের জন্য একটি কলঙ্কময়।

বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম খান বলেন, ওনাকে (মুরাদ) আরও আগেই পদত্যাগ করিয়ে শাস্তির ব্যবস্থা করা উচিত ছিল। এখন সেটা হয়েছে, ঠিক আছে, কিন্তু শাস্তির কী হবে?

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো