আমিই সেই ব্যক্তি: ইকবাল

কুমিল্লার পূজামণ্ডপের পাশের এলাকায় অবস্থিত একটি মাজারের মসজিদ থেকে কোরআন নিয়ে মূর্তির কাছে রাখার কথা স্বীকার করেছেন সিসিটিভি দেখে শনাক্ত হওয়া ইকবাল হোসেন। পাশাপাশি হিন্দুদের হনুমান ঠাকুরের মূর্তির সাথে থাকা গদাটি সরিয়ে নেওয়ার কথাও স্বীকার করেছেন তিনি।

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) কুমিল্লা পুলিশ লাইন্সে জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্য স্বীকার করেছেন ইকবাল। তবে কারও প্ররোচনায় কিংবা নির্দেশে এ কাজ করেছেন কি না এ বিষয়ে মুখ খোলেননি তিনি।

না প্রকাশ না করার শর্তে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর এক কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, ধরা পড়ার পর থেকে অস্বাভাবিক আচরণ করছে ইকবাল। তাকে আটক করার পর থেকে সে নিঃসংকোচে বলে আসছিল ‘আমিই সেই ব্যক্তি’।

জানা যায়, কুমিল্লায় আনার পর পুলিশ লাইন্সে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একাধিক ইউনিটের কর্মকর্তারা ইকবালকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। ক্লান্ত থাকায় তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

এর আগে কক্সবাজার থেকে গ্রেপ্তারের পর শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে কুমিল্লায় প্রবেশ করে ইকবালকে বহনকারী পুলিশের মাইক্রোবাসটি। বিষয়টা নিশ্চিত করেন কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সোহান সরকার।

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো