টেকনাফে রেফারি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে বাফুফের নতুন ইতিহাস

মাদকের অন্ধকার থাবা থেকে বেড়িয়ে এবার খেলাধুলায় মগ্ন হচ্ছে কক্সবাজারের টেকনাফের এক দল ক্রীড়ামোদী যুবক। তার ধারাবাহিকতায় দেশের প্রথম বারের মতো উপজেলা পর্যায়ে সাবেক ও বর্তমান ৫৭ জন ফুটবলারদের অংশগ্রহনে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) রেফারি কোর্স সম্পন্ন হয়েছে।

টিউরেটিক্যাল ও প্রেক্টিক্যাল কোর্সের ইন্সট্রাকটর হিসেবে ছিলেন সাবেক ফিফা রেফারি তৈয়ব হাসান শামসুজ্জামান বাবু ও মোহাম্মদ নাজমুল হুদা।

১৬ অক্টোবর থেকে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত উপজেলার হ্নীলা রঙ্গীখালী মাদ্রাসা ও হ্নীলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হয়। প্রশিক্ষণ পরবর্তী সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজার জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি অধ্যাপক জসিম উদ্দিন, সদস্য জসিম উদ্দিন, আলী রেজা তছলিম, জেলা রেফারিজ এসোসিয়েশন এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ ও সিনিয়র রেফারি আবুল কাশেম।

প্রধান অতিথি বলেন, কক্সবাজারের ইতিহাসে এই প্রথম ফুটবল রেফারি কোর্স কক্সবাজারের ক্রীড়া জগতের জন্য একটি মাইল ফলক। এই প্রশিক্ষণের মধ্যদিয়ে কক্সবাজারের ক্রীড়াঙ্গনে পেশাদারীত্বের নতুন মাত্রা যোগ হবে। এই অঞ্চল নিয়ে মাদকের দুর্নাম জড়িয়ে গেছে। নতুন প্রজন্মকে একটি সুস্থ ধারায় গড়ে তুলতে খেলাধুলার বিকল্প নেই। এই যাত্রায় খেলাধুলার উন্নয়নে যারা কাজ করবে জেলা ক্রীড়া সংস্থা তাদের পাশে থাকবে।

প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের মাঝে সনদ বিতরণ। ছবি- বার্তা বাজার

উপজেলার ক্রীড়া অঙ্গনের সাথে জড়িত খেলোয়াড়রা এই প্রশিক্ষন কোর্স নিয়ে যেমনি আশাবাদী, তার উল্টো দিকে আক্ষেপের কথাও জানান। টেকনাফের ক্রীড়াঙ্গনে যারা এই রেফারি প্রশিক্ষণের বিরোধিতা করেছিলো তারা মূলত টেকনাফের ক্রীড়াঙ্গনের খেলাধুলার উন্নয়ন নিয়ে কাজ করেনা। বিগত সময়ে এসব লোকের কারনেই টেকনাফের সম্ভাবনাময় খেলোয়াররা উচ্চ পর্যায়ে খেলার সুযোগ হারিয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান জিয়া ‘বার্তা বাজার’কে বলেন- খেলাধুলা একটি সমাজকে পরিবর্তন করে দিতে পারে। উপজেলা পর্যায়ে রেফারি প্রশিক্ষন একটি রীতিমতো চ্যালেঞ্জের ব্যাপার ছিলো। বাফুফে কর্মকর্তাদের সহযোগীতায় টেকনাফের মতো একটি জায়গায় প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করা উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার জন্য বড় সফলতা। উপজেলা ক্রীড়া সংস্থাকে নিয়ে যে যতোই চক্রান্ত করুক কেন্দ্র এবং জেলা ক্রীড়ার সংস্থার সহযোগিতায় টেকনাফের ক্রীড়াঙ্গন আবারও উজ্জীবিত হয়ে উঠবে। খেলাধুলার মধ্যদিয়ে আমরা টেকনাফের হারানো গৌরব ফিরে আনতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো