ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষর জাল করে ভাইস চেয়ারম্যান কারাগারে

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষর জালিয়াতির মামলায় দিনাজপুর সদর উপজেলার পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম সোহাগকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

রোববার (২৪ অক্টোবর) বিকালে দিনাজপুরের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইসমাইল হোসেনের আদালতে তিনি আত্মসর্পণ করেন। পরে আদালত তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

দায়ের করা মামলা সূত্রে জানা গেছে, সদর উপেজলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর কুমার রায়ের মৃত্যুর পর উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। তখন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর জাল করে নিজেকে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য দাবি করেন ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী রবিউল ইসলাম সোহাগ। তাৎক্ষণিক তার পদকে চ্যালেঞ্জ করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী।

স্বাক্ষর জাল করার বিষয়টি নিশ্চিতের পর তিনি মামলা দায়ের করেন রবিউল ইসলাম সোহাগের নামে। এরপর হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে জয়লাভও করেন সোহাগ। পরে তিনি জামিনের মেয়াদ আরও এক দফা বৃদ্ধি করেন।

সর্বশেষ রোববার হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী নিম্ন আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে আদালত ওই আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।

দিনাজপুর কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো: মনিরুজ্জামান জানান, দিনাজপুর সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম সোহাগের বিরুদ্ধে ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষর জাল করার মামলায় তাকে দিনাজপুর কোর্ট থেকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো