স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা: স্বামীর মৃত্যুদণ্ড, দেবরের যাবজ্জীবন

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে স্বামী শাহাবুদ্দিনকে মৃত্যুদণ্ড ও দেবর সুমন খানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে উভয়কে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে।

এছাড়াও মামলা অপর দুই আসামিকে খালাস দিয়েছেন আদালত। তারা হলেন- আছিয়া বেগম ও ঝুমুর বেগম।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে ফরিদপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) প্রদীপ কুমার রায় এ আদেশ দেন। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট স্বপন পাল জানান, ২০১১ সালর ২৭ জুন ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার সদর ইউনিয়নের ধলাইরচর গ্রামে আসামি শাহাবুদ্দিন খান ও সুমন খানসহ পরিবারের অন্য সদস্য আছিয়া বেগম এবং ঝুমুর বেগম মিলে মামলার বাদী একই গ্রামের কবির মোল্যার মেয়ে মনিরা খানমকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে ঘরের ভেতর গায়ে কেরোসিন দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।

পরে মনিরার চিৎকারে পাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এবং পরবর্তীতে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় মনিরার বাবা বাদী হয়ে ২০১১ সালের ৩ জুলাই আলফাডাঙ্গা থানায় নারী নির্যাতন ও হত্যা মামলা দায়ের করেন। আদালত সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আজ এ রায় দেন বলেও জানান পিপি স্বপন পাল।

মিয়া রাকিবুল/বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো