বিরোধ হলেই বলে রাজাকার: সেতুমন্ত্রী

কারও সাথে কারও মতের মিল না হলে তাকে বলবে রাজাকারের ছেলে অথবা শান্তি কমিটির সদস্য কিংবা রাজাকারের নাতি। প্রতিপক্ষকে এখন এসব অভিযোগ করা হচ্ছে। আওয়ামী লীগের এক মনোনয়নপ্রত্যাশীর প্রতি অপর প্রত্যাশীর এমন অভিযোগ পার্টি অফিস স্তুপ হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্যবিষয়ক কেন্দ্রীয় উপকমিটি আয়োজিত করোনাকালে শিল্প ও বাণিজ্য উন্নয়নে শেখ হাসিনার ভূমিকা’ শিরোনামে সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরাই এখন একে অপরের দিকে ‘রাজাকার’-এর তকমা লাগানোর চেষ্টা করছেন। চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়নের জন্য প্রার্থী বাছাই করতে গিয়ে তাঁদেরকে এসব অভিযোগ শুনতে হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, আমি ব্যবসায়ীদের রাজনীতি করার বিরুদ্ধে নই। কিন্তু রাজনীতিকে যখন ব্যবসার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হয়, সেটাকে আমি ঘৃণা করি। এ দেশে অনেকে ব্যবসা না করেও রাজনীতিতে নেতা হয়ে ব্যবসা শুরু করেছেন।

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো