মেঘনায় স্পিড বোট ও বালুবাহী ট্রলার সংঘর্ষে নিহত ২

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরের স্পীডবোর্ড ও বালুবাহী ট্রলারের সাথে সংঘর্ষে স্পীডবোর্ডের ২ যাত্রী নিহত হয়েছে।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) রাতে উপজেলার মরিচাকান্দি মেঘনা নদীতে এঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন-ফরিদ মিয়া (৪৫) ও জুয়েল (৩৫)।

ফরিদ নরসিংদীর সদরের সঙ্গীতা এলাকার জুলফু মিয়ার ছেলে ও জুয়েল বাঞ্ছারামপুর উপজেলার সলিমাবাদের খুরশিদ মিয়ার ছেলে। জুয়েল সলিমাবাদ ইউনিয়নের পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের পরিদর্শকের দায়িত্বে ছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাতে বাঞ্ছারামপুরের উদ্দেশ্যে নরসিংদী থেকে ছেড়ে আসে একটি স্পীডবোর্ডে ড্রাইভারসহ ১২ জন যাত্রী ছিল। মেঘনা নদীর মরিচাকান্দি অংশে স্পীডবোর্ডটি বালুবাহী ট্রলারের সাথে সংর্ঘষ হয়। এ সময় ঢাকায় নেওয়া পথে জুয়েলের এবং নরসিংদী নেওয়ার পথে ফরিদ মিয়ার মৃত্যু হয়।

বাঞ্ছারামপুর থানার ওসি মো: রাজু আহমেদ দূর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, স্পিডবোটটি ১০/১২ জন যাত্রী নিয়ে নরসিংদী থেকে মরিচাকান্দি নৌঘাটে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে একটি ট্রলারের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় সবাই প্রাণে রক্ষা পেলেও জুয়েল ও ফরিদ মিয়ার মৃত্যু হয়েছে। ঘটনার পর থেকে স্পিডবোট চালককে খোঁজে পাওয়া যায়নি।

সন্তোষ চন্দ্র সূত্রধর/বার্তা বাজার/অমি

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো