‘খালাকে’ বিয়ে করতে না পেরে মামাকে কোপালো ভাগ্নে

বরগুনায় মামীর বোনকে (খালা) বিয়ে করতে না পেরে মামাকে কুপিয়েছে মাহফুজ নামে এক যুবক। গত মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) বরগুনা সদর উপজেলার বুড়িরচর ইউনিয়নের পুর্ব বুড়ির চরে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, মামা ফজলু প্যাদার (৪৫) শ্যালিকাকে বিয়ে করতে বেশকিছু দিন ধরেই চেষ্টা চালিয়ে আসছিল ভাগ্নে মাহফুজ। এ নিয়ে মামা-ভাগ্নের মধ্যে বিরোধ চলছিল দীর্ঘদিন ধরে।

এ ব্যাপারটা নিয়ে তাদের পরিবারের সম্পর্কও অবনতি হয়েছিল। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মা কুলসুম বেগমকে নিয়ে মাহফুজ তার মামার সাথে বিয়ের ব্যাপারে আবারও তর্কে লিপ্ত হয়।

এক পর্যায়ে মাহফুজ ক্ষিপ্ত হয়ে তার মামা ফজলুর মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। গুরুতর আহত অবস্থায় ফজলুকে উদ্ধার করে স্বজনরা বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তাকে নেওয়া হয় বরিশালের শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক নিহার রঞ্জন বৈদ্য জানান, ফজলুর মাথায় ধারালো অস্ত্রের সাত আটটি জখমের হয়েছে। প্রচুর রক্তক্ষরণ হওয়ায় তাকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কক্ষে রাখা হয়েছে।

বরগুনা সদর থানার ওসি তারিকুল ইসলাম বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো