সিরাজগঞ্জ-৬ আসনে উপ-নির্বাচন: চলছে ভোট, উপস্থিতি কম

সিরাজগঞ্জ-৬ আসনের উপ-নির্বাচনে ভোট গ্রহণ চলছে। তবে ভোটার উপস্থিতি কম। মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) সকাল ৮ টা থেকেই ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের উপস্থিতি ছিলো ফাঁকা। তবে বেলা বাড়ার সাথে সাথে কিছুটা উপস্থিতি লক্ষ্যকরা গেছে। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ওই আসনের ১৬০টি কেন্দ্রে ইভিএমের মাধ্যমে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।

দুপুরের দিকে বাচড়া হাফিজিয়া মাদ্রাসা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে জানা যায়,ওই কেন্দ্রে মোট ভোটার ২ হাজার ৩ শত ৭১ জন। তাদের মধ্যে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছে ৪’শ ৩০ জন।

সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার হাসিবুল আলম বিপিএম জানান, নির্বাচন ঘিরে প্রশাসনের তরফ থেকে তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। মোট ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ৫৭টি কেন্দ্রকে ঝুকিপুর্ণ বিবেচনা করা হয়েছে। অবাধ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ৪ জন সশস্ত্র পুলিশ ও ১২ জন সশস্ত্র আনসার সদস্য সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন ছাড়াও স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে বিজিবি, ৮ প্লাটুন র‍্যাব, পুলিশের ১৬টি মোবাইল টিম ও ৮ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পুরো নির্বাচনী এলাকায় দায়িত্ব পালন করবেন।

পাশাপাশি ১ জন যুগ্ম জেলা জজ ও ১ জন সিনিয়র সহকারী জজের নেতৃত্বে দুইটি বিচারিক আদালত ভোট গ্রহণ চলাকালে দায়িত্ব পালন করবেন।বীরমুক্তিযোদ্ধা হাসিবুর রহমান স্বপন করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২ সেপ্টেম্বর মৃত্যুবরণ করলে আসনটি শূণ্য হলে নির্বাচন কমিশন। এরপর ভোটগ্রহণের দিন ধার্য হয়।

নির্বাচনে ৩ জন প্রার্থী প্রতিন্দন্দ্বীতা করছেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতা (প্রতীক নৌকা), জাতীয় পার্টি মনোনীত কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোক্তার হোসেন (প্রতীক লাঙ্গল) ও স্বতন্ত্র অ্যাড. হুমায়ূন কবির (প্রতীক মোটরগাড়ী)। উপজেলার ১৬০ টি কেন্দ্রে ৪ লক্ষ ২০ হাজার ৭৮০ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

এম এ মালেক/বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো