থেমে থেমে জ্বর: সপ্তাহখানেক হাসপাতালে থাকতে পারেন খালেদা

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার আবারও থেমে থেমে জ্বর আসছে। দু’দিন ধরে চলা এ জ্বরের কোনো নির্দিষ্ট কারণ খোঁজে পাচ্ছেন না চিকিৎসকরা। সোমবার রাতেও মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা এ বিষয়ে পর্যালোচনা করেছেন।

তারা আরও কিছু নিয়মিত পরীক্ষা নিরীক্ষা করবেন খালেদা জিয়াকে। সেগুলো দেখার পর সিদ্ধান্ত নিবেন নতুন করে। তবে খালেদা জিয়াকে আরও সপ্তাহ খানেক রাখা হতে পারে হাসপাতালে।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় নিয়োজিত এক চিকিৎসক জানান, দীর্ঘদিন পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করার কারণে পুরনো অসুখগুলোই আবারও বেশি করে মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে। রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বেগম জিয়াকে প্রতিদিনই বোর্ডের সদস্যরা বসে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষাসহ ওষুধপত্র দিচ্ছেন।

তিনি জানান, শরীরের বেড়ে যাওয়া তাপমাত্রা কয়েক দিন আগে কমে যাবার পর ফের থেমে থেমে জ্বর আসছে। ডায়াবেটিকের মাত্রাও কিছুটা বেড়েছে। তবে কোভিড-১৯ পরবর্তী জটিলতা ছাড়াও আর্থ্রাইটিস, কিডনি, লিভার, দাঁত ও চোখের নানা ধরনের রোগে ভুগছেন তিনি।

এদিকে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানান, চিকিৎসকেরা সাধ্যমতো চেষ্টা করছেন। তবে তাঁর চিকিৎসা বাংলাদেশে সম্ভব নয়। বিশ্বের উন্নত হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা হওয়া দরকার। তাঁকে সম্পূর্ণভাবে সুস্থ করতে বিদেশে আরও উন্নত চিকিৎসার দরকার। কিন্তু সরকার তাঁকে বিদেশে চিকিৎসা করাতেও দিচ্ছে না।

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো