গাঁজাসহ আটক বৃদ্ধকে মারধর করলেন পুলিশ কর্মকর্তা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মাজারে যাওয়ার পথে সাথে করে খাওয়ার জন্য ১১ পুড়িয়া গাঁজা নেয়ার সময় ইব্রাহিম মিয়া নামে ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধকে মারধর করেছেন অলিউল্লাহ নামে এক পুলিশ কর্মকর্তা। পরে তাকে আটক করে থানায় নিয়া আসে পুলিশ।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) দুপুরে উপজেলার আশুগঞ্জ গোলচত্তর এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটে। ভুক্তভোগী ইব্রাহিম মিয়ার বাড়ি উপজেলার আড়াইসিধা ইউনিয়নের বাগমারা এলাকায়। এসময় তার সাথে বাসির মিয়া নামে ৭৫ বছর বয়সী আরো একজন ছিল।

ভুক্তভোগী বাসির মিয়া জানান, শনিবার সকালে আড়াইসিধা হতে হবিগঞ্জ জেলায় মুড়ারবন্দ নামক স্থানে সিপাহসালার সৈয়দ নাসির উদ্দীনের মাজারে যাওয়ার জন্য রওয়ানা দেন ইব্রাহিম মিয়া ও বাসির মিয়া। তারা মাজারে গিয়ে খাওয়ার জন্য ১১ পুড়িয়া গাঁজা সাথে করে নিয়ে নেন।

একটি অটোরিক্সা করে তারা আশুগঞ্জ পৌছলে গোলচত্তর এলাকায় আশুগঞ্জ থানার এসআই অলিউল্লাহ তাদের গাড়ি থামিয়ে তল্লাসী চালায়। পরে তাদের ব্যাগে তল্লাসী করার সময় ইব্রাহিম মিয়াকে চরথাপ্পর মারেন। পরে তাদের দু’জনকেই গাজাসহ আটক করে থানায় নিয়ে যান।

এই বিষয়ে আশুগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অলিউল্লাহকে তার বাবার বয়সী মুরুব্বীকে চরথাপ্পর মারার কারন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ব্যাগে গাঁজা রেখে মিথ্যা বলায় তাকে আমি একটি থাপ্পর দিয়েছি।

আশুগঞ্জ থানার ওসি মো. আজাদ রহমান জানান, একটি অটোরিক্সা ও গাঁজাসহ ‍দুজনকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। কোনো অপরাধী অপরাধ করে থাকলে তাকে আইনের আওতায় আনতে হবে। মারার বিষয়ে আমার জানা নাই। আইনগত প্রক্রিয়ায় কাউকেই থাপ্পর মারার কোনো বিধান নেই। বিষয়টি আমি দেখছি।

সন্তোষ চন্দ্র সূত্রধর/বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো