ভালো মোবাইল কিনতে নিজের স্ত্রীকে বৃদ্ধের কাছে বিক্রি

ভালো একটি স্মার্ট ফোন ক্রয় করতে বিয়ের মাত্র ২ মাসের মধ্যেই নিজের স্ত্রীকে জনৈক বৃদ্ধের কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন এক স্বামী। ভারতের ওড়িশা প্রদেশের বোলঙ্গি জেলায় ১৭ বছর বয়সী এক কিশোর এমন অপকর্ম করেছেন।

জানা যায়, নিজের স্ত্রীকে নিয়ে রাজস্থানে বেড়াতে যায় ওই কিশোর। সেখানে একটি ইটভাটায় কাজ করতো সে। বেড়াতে নিয়ে স্ত্রীকে এক বৃদ্ধের কাছে বিক্রি করে সেই টাকায় স্মার্ট ফোন কিনে বাড়িতে ফিরে আসে কিশোরটি। আর সবাইকে জানায়, তার স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে গেছে।

ভারতের জনপ্রিয় গণমাধ্যম হিন্দুস্তান্টাইমসের এক খবরে বলা হয়, বিয়ের দুই মাস পর ২৬ বছর বয়সী স্ত্রীকে রাজস্থানের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের বারান জেলার ৫৫ বছর বয়সী বৃদ্ধের কাছে ১ লাখ ৮০ হাজার রুপিতে বিক্রি (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২ লক্ষাধিক টাকা) করে দেয় সে।

রাজস্থানের এই জেলার সঙ্গে মধ্যপ্রদেশের সীমান্ত বিরোধ রয়েছে; যে কারণে পুলিশ ওই তরুণীকে উদ্ধার করতে গিয়ে স্থানীয়দের তোপের মুখে পড়ে। তারা পুলিশকে বাধা দেয়। হিসেবে স্থানীয় গ্রামবাসীরা বলেন, ওই তরুণীকে তারা কিনে

এদিকে, অভিযুক্তকে কিশোর সংশোধনাগারে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টিতে আর কেউ জড়িত রয়েছে কিনা, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

এর আগে, ঘটনার দিন ওই কিশোর হোটেলে খাওয়া-দাওয়া করে কিছু অর্থ খরচ করে এবং নিজের জন্য একটি স্মার্টফোন কিনে। গ্রামে ফিরে আসার পর যখন স্ত্রীর পরিবার মেয়ের সম্পর্কে জানতে চায়; তখন ওই কিশোর দাবি করে, সে তাকে ছেড়ে চলে গেছে।

কিন্তু ওই তরুণীর পরিবারের সদস্যরা তার এই গল্প বিশ্বাস করেননি এবং তারা পুলিশের কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। পরে পুলিশ তাদের কল রেকর্ড যাচাই-বাছাই করে প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন করে।

বার্তা বাজার/এসজে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো